1. m.milon77@gmail.com : Daily Mail 24.live : Daily Mail 24.live
  2. info@www.dailymail24.live : Daily Mail 24 :
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৯:১৫ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
লালমনিরহাটে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ফুসলিয়ে বিয়ের তথ্য ফাঁস এলাকায় তোলপাড় ভারতের সিকিমের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর লাশ ভেসে এলো লালমনিরহাটে-DailyMail নেতার বিরুদ্ধে অপপ্রচারে ক্ষুব্ধ স্থানীয় জনতা-DailyMail পাঁচ মাসের অ/ন্তঃ/সত্ত্বা স্ত্রী/র পেটে লা/থি, মা/র/ধ/রঃ প/র/কী/য়ায় ব্যস্ত স্বা/মী-DailyMail লালমনিরহাট পৌরসভার বাজেট ঘোষণা: আধুনিক ও জনকল্যাণমুখী পৌরসভা গঠনে বদ্ধপরিকর  হরিজনদের নিয়ে কেউ ভাবে নাঃ বৃদ্ধা হরিজনের আকুতি-DailyMail লালমনিরহাট রেলওয়ে স্টেশনে ১০ কেজি গাঁজাসহ যুবক গ্রেফতার-DailyMail বানরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ কালীগঞ্জের মানুষ-DailyMail কালীগঞ্জে কৃষকের ৩টি গরু পুড়ে ছাঁই লালমনিরহাটের আদিতমারীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধে হামলা ও অগ্নিসংযোগ: থানায় মামলা দায়ের

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন প্রয়োজন : জিএম কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৮৪ বার পড়া হয়েছে

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের প্রয়োজন রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) রজতজয়ন্তী উৎসব উপলক্ষে শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর কাকরাইল ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ‘রিপোর্টার্স চ্যালেঞ্জ: রিয়েল নিউজ ভার্সেস ফেক নিউজ’ শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জিএম কাদের বলেন, আমরা জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনের বিষয়ে সংসদে কথা বলেছিলাম। এ আইনের যে ধারাগুলো নিয়ে আপনাদের আপত্তি রয়েছে, সেগুলো বাতিলের দাবি করেছিলাম। কিন্তু আমাদের সংসদীয় পদ্ধতি এমন যে, সরকার যেটা চাইবে তার বাইরে সংসদের যাওয়ার কোনো উপায় নেই। আমি মনে করি, ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন সংশোধনের প্রয়োজন আছে। আপনারা চাইলে আমরা আবারও বিষয়টি সংসদে তুলে ধরতে পারি।

সাংবাদিকরা সমাজের উন্নয়নে বড় ধরনের ভূমিকা পালন করছেন। আমরা চাই সেই ভূমিকা সাংবাদিকরা ভবিষ্যতে আরও দক্ষতার সঙ্গে পালন করবেন। সাংবাদিকদের সেই ভূমিকা পালন করতে গিয়ে যে সুযোগ-সুবিধা প্রয়োজন আমরা রাজনীতিবিদরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করবো।

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ফেক আইডি দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অপব্যবহার করা হচ্ছে। আমি মনে করি, এসব বিষয়ে সরকারের ব্যবস্থা নেয়া উচিত। কেউ ফেক আইডি খুলে সামাজিক মাধ্যমে যেন কোনো ধরনের অপপ্রচার না চালাতে পারেন। দেশের বাইরে থেকেও অনেক সময় নানা ধরনের অপপ্রচার চালানো হয়। আমাদের দেশের মিডিয়াগুলোকে যদি সব ধরনের কথা বলার সুযোগ করে দেয়া হয়, তাহলে দেশের বাহির থেকে প্রচারিত অপপ্রচার খুব বেশি ফলপ্রসূ হবে না।

বিশেষ অতিথি হিসেবে ভার্চুয়াল মাধ্যমে যুক্ত হয়ে আলোচনায় অংশ নেন দ্যা ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহ্ফুজ আনাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক শফিউল আলম প্রধান, দৈনিক নয়া দিগন্ত সম্পাদক আলমগীর মহিউদ্দিন।

মাহমুজ আনাম বলেন, বর্তমান সময়ে সোশ্যাল মিডিয়ার ভূমিকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এসব সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক সময় ফেক নিউজ প্রচারিত হয়। তাই আমাদের আরও বেশি নিষ্ঠাবান, নিজেদের দক্ষতার উন্নয়ন এবং আধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে যাচাই-বাছাই করে প্রকৃত সত্য সংবাদ পরিবেশন করতে হবে। তাহলে পাঠক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত ফেক নিউজ থেকে মুলধারার গণমাধ্যমে ফিরে আসবে।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন একাত্তর টিভির হেড অব নিউজ শাকিল আহমেদ।

আলোচনা করেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, ডেইলি সান সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরী, ডেইলি এশিয়ান এইজের কনসালটেন্ট এডিটর মোস্তফা কামাল মজুমদার, নিউইয়র্ক টাইমসের সাংবাদিক জুলফিকার আলি মানিক প্রমুখ।

সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন ডিআরইউ সাবেক সভাপতি এম শফিকুল করিম ও ডিআরইউর অর্থ সম্পাদক জিয়াউল হক সবুজ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓