1. m.milon77@gmail.com : Daily Mail 24.live : Daily Mail 24.live
  2. info@www.dailymail24.live : Daily Mail 24 :
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৯:৫৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
লালমনিরহাটে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ফুসলিয়ে বিয়ের তথ্য ফাঁস এলাকায় তোলপাড় ভারতের সিকিমের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর লাশ ভেসে এলো লালমনিরহাটে-DailyMail নেতার বিরুদ্ধে অপপ্রচারে ক্ষুব্ধ স্থানীয় জনতা-DailyMail পাঁচ মাসের অ/ন্তঃ/সত্ত্বা স্ত্রী/র পেটে লা/থি, মা/র/ধ/রঃ প/র/কী/য়ায় ব্যস্ত স্বা/মী-DailyMail লালমনিরহাট পৌরসভার বাজেট ঘোষণা: আধুনিক ও জনকল্যাণমুখী পৌরসভা গঠনে বদ্ধপরিকর  হরিজনদের নিয়ে কেউ ভাবে নাঃ বৃদ্ধা হরিজনের আকুতি-DailyMail লালমনিরহাট রেলওয়ে স্টেশনে ১০ কেজি গাঁজাসহ যুবক গ্রেফতার-DailyMail বানরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ কালীগঞ্জের মানুষ-DailyMail কালীগঞ্জে কৃষকের ৩টি গরু পুড়ে ছাঁই লালমনিরহাটের আদিতমারীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধে হামলা ও অগ্নিসংযোগ: থানায় মামলা দায়ের

নি:শ্বাস পরীক্ষার মাধ্যমে এক মিনিটেই মিলবে করোনার ফল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৬৫ বার পড়া হয়েছে

শ্বাস- প্রশ্বাস পরীক্ষার মাধ্যমে এক মিনিটেই করোনা পরীক্ষার ফল পাওয়ার পদ্ধতি আবিস্কার করেছে সিঙ্গাপুরের একটি বিশ্ববিদ্যালয়। ব্রেথোনিক্স নামে সিঙ্গাপুর ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি উদ্ভাবিত এ পদ্ধতি ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রেই সঠিক ফলাফল দেয়।

সম্প্রতি ১৮০ জনের উপর ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চালায় প্রতিষ্ঠানটি। আগামী বছরের শুরুর দিকে এটির অনুমোদন লাভের আশা করা হচ্ছে। খবর সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের।

সম্প্রতি বিশ্ব জুড়েই পিসিআর পরীক্ষার বিকল্প পদ্ধতি খোঁজা হচ্ছে।

বর্তমানে সিঙ্গাপুরজুড়ে এ পরীক্ষা কার্যক্রমের পরিধি বাড়ানো হয়েছে। উদ্ভাবনকারী প্রতিষ্ঠানটি আশা করছে, আগামী বছরের প্রথম তিন মাসের মধ্যে এটির বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরুর সবুজ সংকেত মিলবে। এতে পিসিআর টেস্টের চেয়ে ৭০ শতাংশ ব্যয় কম হবে। তবে গুরুতর রোগীর করোনা সনাক্তে পিসিআর টেস্ট প্রয়োজন হতে পারে বলেও জানানো হয় প্রতিবেদনে।

এই পদ্ধতিতে মাউথপিসের মাধ্যমে একটি ডিভাইসের ভিতর নি:শ্বাস নিতেহবে। এরপর বিশেষ যন্ত্রের মাধ্যমে ডিভাইসে থাকা সেই শ্বাস পরীক্ষা করে এতে থাকা ভিওসি বিশ্লেষণ করা হবে। মাত্র এক মিনিটের ব্যবধানে যন্ত্রটি জানিয়ে দেবে পরীক্ষিত ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত কিনা।

নি:শ্বাসের মাধ্যমে প্রায় একই রকমের পরীক্ষা পদ্ধতি ফ্রান্সের হাসপাতালগুলোয় চালু আছে। তবে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এ পদ্ধতি ব্যয়বহুল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓