1. m.milon77@gmail.com : Daily Mail 24.live : Daily Mail 24.live
  2. info@www.dailymail24.live : Daily Mail 24 :
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০৩ অপরাহ্ন

লালমনিরহাটে মনোরঞ্জন দেবনাথকে মারধর করে ছিনতাই

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ১৬৯ বার পড়া হয়েছে

 

নিজস্ব প্রতিবেদক।। 

লালমনিহাট জেলায় আদিতমারী উপজেলায় এক সংখ্যালঘুকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছিনতাই, লুটপাট ও মারপিটের ঘটনার অভিযোগ পাওয়া যায়। ভুক্তভোগী শ্রী মনোরঞ্জন দেবনাথ (৩৮) এখন রংপুর মেডিকেল কলেজে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। আহত মনোরঞ্জন চিকিৎসাধীন থাকায় তার স্ত্রীর মাধ্যমে আদিতমারী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শ্রী মনোরঞ্জন দেবনাথ, ৭ নং ওয়ার্ড সারপুকুর (জোড়া মন্দির) সংলগ্ন আদিতমারী উপজেলার বাসিন্দা। বিবাদী মোঃ রশিদুল ইসলাম, পিতা- আঃ জলিল উভয়ই একই এলাকার বাসিন্দা। ডিলারশিপের ব্যবসা চলাকালে দু’জনের মধ্যে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। তারই সূত্র ধরে, গত ২৭/১২/২০২৩ ইং বিবাদী রশিদুল ইসলাম মনোরঞ্জনের পাঁচ লক্ষ পায় বলে দাবী করে ব্যর্থ হয়। ব্যর্থ হয়ে রশিদুল ইসলাম পরিকল্পিতভাবে মনোরঞ্জনকে হত্যার পরিকল্পনা করে। 

অবশেষে মনোরঞ্জন দেবনাথ গত ০২/০২/২০২৪ ইং রাত আনুমানিক ১০টার সময় সাপ্টিবাড়ী তেতুলতলা মোড়ে পৌঁছালে রশিদুল ইসলাম সদলবলে আক্রমণ করে ও ডিলারশিপের কালেকশনের ১লাখ ৬০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। আরো মনোরঞ্জনের নিজের চালানো অটো রিক্সার ব্যাটারী খুলে নিয়ে পালিয়ে যায়। যার মূল্য প্রায় ৫০ হাজার টাকার বেশি। আহত মনোরঞ্জনকে স্হানীয় লোকজন উদ্ধার করে আদিতমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করালে অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বর্তমানে মনোরঞ্জন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

আহত মনোরঞ্জন হাসপাতালে থাকা অবস্থায় তার স্ত্রী আদিতমারী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তার স্ত্রী বলেন- আমরা সংখ্যালঘু বলে আমাদের উপর আক্রমণ হয়। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার দাবি করছি। এ বিষয়ে আদিতমারী থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন- আমরা অভিযোগটি আমলে নিয়ে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করছি। তদন্ত চলমান। 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓